আল্লাহকে ভয় করা বিষয়কত দু’টি আয়াত

            কুরআন ও সুন্নাহের ওপর আরোপিত বিভিন্ন প্রশ্নের জাওয়াব

অনুবাদক: জাকেরুল্লাহ আবুল খায়ের।। সম্পাদক: ড. আবু বকর মুহাম্মাদ যাকারিয়া

প্রশ্ন: নিম্ন বর্ণিত দু’টি আয়াতের দ্বিতীয়টি প্রথমটির জন্য রহিতকারী কিনা জানতে চাই?

প্রথম আয়াত: আল্লাহ তা‘আলা বলেন, ﴿يَٰٓأَيُّهَا ٱلَّذِينَ ءَامَنُواْ ٱتَّقُواْ ٱللَّهَ حَقَّ تُقَاتِهِۦ وَلَا تَمُوتُنَّ إِلَّا وَأَنتُم مُّسۡلِمُونَ ١٠٢﴾ [ال عمران: ١٠٢]  “হে মুমিনগণ, তোমরা আল্লাহকে ভয় কর, যথাযথ ভয়। আর তোমরা মুসলমান হওয়া ছাড়া মারা যেও না।” [সূরা আলে-ইমরান, আয়াত: ১০২]

দ্বিতীয় আয়াত: ﴿فَٱتَّقُواْ ٱللَّهَ مَا ٱسۡتَطَعۡتُمۡ وَٱسۡمَعُواْ وَأَطِيعُواْ وَأَنفِقُواْ خَيۡرٗا لِّأَنفُسِكُمۡۗ وَمَن يُوقَ شُحَّ نَفۡسِهِۦ فَأُوْلَٰٓئِكَ هُمُ ٱلۡمُفۡلِحُونَ ١٦﴾ [التغابن : ١٦]  “অতএব তোমরা যথাসাধ্য আল্লাহকে ভয় কর, শ্রবণ কর, আনুগত্য কর এবং তোমাদের নিজদের কল্যাণে ব্যয় কর, আর যাদেরকে অন্তরের কার্পণ্য থেকে রক্ষা করা হয়, তারাই মূলত সফলকাম।”  [সূরা আত-তাগাবুন, আয়াত: ১৬]

উত্তর: সাহাবীগণ ও অন্যান্য তাফসীর-বিদগণ প্রথম আয়াতটি রহিত নাকি অকাট্য এ বিষয়ে মতবিরোধ করেছেন। ইবন আব্বাস রাদিয়াল্লাহু আনহু ও তার অনুসারীরা বলেন, আয়াতটি অকাট্য রহিত নয়। আর তারা حَقَّ تُقَاتِهِۦ এর ব্যাখ্যায় বলেন, আল্লাহর রাস্তায় সত্যিকার জিহাদ করবেন আল্লাহর ব্যাপারে কোন নিন্দুকের নিন্দা তাদের প্রভাবিত করতে পারবে না। তারা ইনসাফ প্রতিষ্ঠা করবেন যদিও তা তাদের নিজেদের, সন্তানদের এবং পিতা-মাতার বিপক্ষে যায়।

সা‘ঈদ ইবন জুবাইর, আবুল আলিয়াহ, রাবি‘ ইবন আনাস, ক্বাতাদাহ, মুকাতিল ইবন হাইয়ান, যায়েদ ইবন আসলাম, সুদ্দী রহ. এবং অন্যান্যরা বলেন, আয়াতটি فَٱتَّقُواْ ٱللَّهَ مَا ٱسۡتَطَعۡتُمۡ  “অতএব তোমরা যথাসাধ্য আল্লাহকে ভয় কর” দ্বারা রহিত। আয়াতের মধ্যে কোন রহিত-করণ নেই। উপরের আয়াতে ভয় করার মতো ভয় দ্বারা উদ্দেশ্য এটাই যেটা পরের আয়াতে فَٱتَّقُواْ ٱللَّهَ مَا ٱسۡتَطَعۡتُمۡ  “অতএব তোমরা যথাসাধ্য আল্লাহকে ভয় কর” বলে ব্যক্ত করা হয়েছে। আল্লাহই তাওফীক দাতা।

ফতওয়া ও ইলমী গবেষণ বিষয়ক স্থায়ী সংস্থা

ব্লগ সাইটটি যদি আপনার মনের কোথাও একটুও যায়গা করে নেয় বা ভালো লেগে থাকে। তাহলে আপনিও ব্লগের কার্যক্রম কে সামনের দিকে এগিয়ে নিতে আপনার লেখণী পাঠাতে পারেন।আপনার লেখনী পাঠিয়ে আমাদের ফেচবুক পেজের ম্যাসেঞ্জারে গিয়ে দয়াকরে নক করুন।
নিচে মন্তব্যের ঘরে আপনাদের মতামত জানান। ভালো লাগবে আপনাদের অভিপ্রায়গুলো জানতে পারলে। আর লেখা সম্পর্কিত কোন জিজ্ঞাসার উত্তর পেতে অবশ্যই “ওয়ার্ডপ্রেস থেকে কমেন্ট করুন”।

আপনার মন্তব্য লিখুন

দয়া করে আপনার মন্তব্য লিখুন !
দয়া করে এখানে আপনার নাম লিখুন